মৃত্যু

0
67
মৃত্যু ও মৃত ব্যক্তি সম্পর্কে
২৭০. রাসূলুল্লাহ (সাঃ) বলেছেন- মহান ও পরাক্রমশালী আল্লাহ্‌ আত্নাকে বলেন, “বেরোও।” সে বলে, “না আমি স্বেচ্ছায় বেরোব না।” আল্লাহ বলেন, “অনিচ্ছায় হলেও, বেরোও।”

বাযযার এ হাদীসটি হযরত আবূ হুরায়রা (রা) থেকে সংগ্রহ করেছেন।

২৭১. রাসুলুল্লাহ (সাঃ) বলেছেন- যখন মু’মিন-বিশ্বাসী বান্দার রূহ বেরোয় তখন ওর সাথে দু’জন ফেরেশতা দেখা (অর্থাৎ তা গ্রহণ) করে এবং তা নিয়ে দু’জনই ঊর্ধ্বে আরোহন করে। তারপর এর সুগন্ধির কথা উল্লেখ করা হয়। আসমানবাসিগণ বলে, “পৃথিবী থেকে একটি পবিত্র রূহের আগমন ঘটেছে। হে রূহ! তোমার প্রতি এবং যে দেহ তুমি আবাদ করছিলে, তার প্রতি আল্লাহর শান্তি বর্ষিত হোক।” অনন্তর একজন ফেরেশতা তাকে নিয়ে তার প্রতিপালকের কাছে চলে যায়। তারপর তিনি বলেন, “তাকে শেষ সময়ের (অর্থাৎ কেয়ামত না হওয়া পর্যন্ত) জন্য নিয়ে যাও।” পান্তরে কাফিরের আত্না যখন বেরোয়, তখন এর দুর্গন্ধ ও অপবিত্রতার কথা উল্লেখ করা হয়। আসমানবাসিগণ বলে, “পৃথিবী থেকে একটি অপবিত্র রূহের আগমণ ঘটেছে।” আর এর সম্বন্ধে বলা হয়-“শেষ সময় পর্যন্ত রাখবার জন্য তাকে নিয়ে যাও।”

মুসলিম এ হাদীসটি হযরত আবূ হুরায়রা (রা) থেকে সংগ্রহ করেছেন।

মৃতের খাটিয়া
২৭২. রাসূলুল্লাহ (সাঃ) বলেছেন- সুমহান আল্লাহ বলেন, “তুমি কি খাটিয়ার উপর কোন মরদেহ দেখ নি? ”

দায়লামী এ হাদীসটি সংগ্রহ করেছেন।

মৃতের প্রশংসা
২৭৩. রাসূলুল্লাহ (সাঃ) বলেছেন- এরূপ কোন মুসলমান মারা যায় না, যার সম্পর্কে তার নিকট প্রতিবেশীর মধ্যে থেকে চার পরিবার সাক্ষ্য দেয় যে, বলেন, “তার বিষয়ে আমি তোমাদের কথাকে গ্রহণ করলাম, আর তোমরা যা জাননা, তাকে তা ক্ষমা করে দিলাম।”

মুসনাদে আহমদ, আবূ ইয়ালা, ইবনে হাব্বান, হাকেম, আবূ নুআঈ’ম, বায়হাকী ও দিয়াউল মুকাদ্দেসী এ হাদীসটি হযরত আনাস (রা) থেকে সংগ্রহ করছেন।

২৭৪. রাসূলুল্লাহ (সাঃ) বলেছেন- কোন মু’মিন লোক যখন মারা যায়, আর তার দু’জন প্রতিবেশী বলে, “আমার তার সম্পর্কে ভাল ছাড়া কিছুই জানি না।” তা যদি আল্লাহর জানায় অনুরূপ নাও হয়, তবুও সুমহান আল্লাহ্‌ তার ফেরেশতাদেরকে বলেন, “আমার বান্দার পক্ষে আমার এ দু’বান্দার সাক্ষ্য গ্রহন করে নাও। আর তার সম্পর্কে আমার জ্ঞানে যা রয়েছে, তা উপো কর।”

ইবনুন নাজ্জার এ হাদীসটি হযরত আবূ হুরায়রা (রা) থেকে সংগ্রহ করেছেন।

২৭৫. রাসূলুল্লাহ (সাঃ) বলেছেন- যখন তোমরা জানাযা আদায় কর, তখন মৃত লোকটির প্রশংসা কর এবং তার ভাল কর্মের আলোচনা কর। কেননা প্রতিপালক বলেন, “তারা সজ্ঞানে যে কাজের সাক্ষ্য দিচ্ছে, তাতে আমি তাদের সাক্ষ্য গ্রহণ করছি।” আর যা তারা জানে না, তার জন্য তাকে ক্ষমা করে দিচ্ছি।”

বুখারী এ হাদীসটি তাঁর তারীখ গ্রন্থে উদ্ধৃত করেছেন, বর্ণনাকারী হযরত রুবাই বিনতে মুআওয়ায (রা)।