ঘৃণা ও ভালবাসা

0
143
ঘৃণা ও ভালবাসা দু’ই আল্লাহর জন্য
৯২. রাসূলুল্লাহ (সাঃ) বলেছেন- মহান আল্লাহ্‌ বলেছেন, “আমার ভালবাসা সে সকল লোকের জন্য নির্ধারিত, যারা আমার উদ্দেশ্যে পরসপরের সাথে বসে।আমার আমার ভালবাসা সে সকল ব্যক্তির জন্য নির্ধারিত হয়ে গেছে যারা আমার উদ্দেশ্যে একে অপরের জন্য ধন-সম্পদ ব্যয় করে। আর আমার ভালবাসা সে সকল ব্যক্তির জন্য নির্ধারণ হয়েছে, যারা আমার উদ্দেশ্যে পরসপরের সাথে দেখা সাক্ষাত করে।”

এ হাদীসটি তিবরানী হযরত উবাদাহ ইবনে সামিত (রা) থেকে সংগ্রহ করেছেন।

৯৩. রাসূলুল্লাহ (সাঃ) বলেছেন- মহান আল্লাহ বলেছেন, “আমার উদ্দেশ্যে যারা একে অপরকে বন্ধু বানিয়েছে তাদের জন্য আমার ভালবাসা সুনির্ধারিত হয়ে গেছে। তাদেরকে কেয়ামতের দিন, যে দিন আমার ছায়া ছাড়া আর কোন ছায়া থাকবে না, আরশের নিচে ছায়া দেব।”

ইবনুল আবিদ্‌ দুনিয়া এ হাদীসটি হযরত উবাদা ইবনে সামিত (রা) থেকে সংগ্রহ করেছেন।

৯৪. রাসূলুল্লাহ (সাঃ) বলেছেন- সুমহান আল্লাহ্‌ বলেন, “নিশ্চয়ই আমি দুনিয়াবাসীদেরকে শাস্তি দিতে মনস্থ করি। অনন্তর আমি যখন আমার ঘর আবাদকারী, আমার উদ্দেশ্যে পরসপরের বন্ধুত্বের বন্ধনে আবদ্ধ ব্যক্তি ও খুব ভোরে আমার কাছে ক্ষমা প্রার্থনাকারীর প্রতি তাকাই, তখন আমি তাদের উপর থেকে সেই শাস্তি অপসারণ করে নেই।”

এ হাদীসটি বায়হাকী কর্তৃক সংগৃহীত।

৯৫. রাসূলুল্লাহ (সাঃ) বলেছেন- কেয়ামতের দিন মহান আল্লাহ্‌ বলবেন, “ঐ সকল ব্যাক্তি কোথায় যারা পৃথিবীতে আমার মহত্ত্বের দিকে লক্ষ্য রেখেই একে অপরকে ভালবাসত? আজ আমি তাদেরকে আমার ছায়ার নিচে আশ্রয় দেব। আজ আমার ছায়া ছাড়া আর কোন ছায়া নেই।”

আহমদ ও মুসলিম এ হাদীসটি হযরত আবূ হুরায়রা (রা) থেকে সংগ্রহ করেছেন।

৯৬. রাসূলুল্লাহ (সাঃ) বলেছেন- মহান আল্লাহ্‌ বলেছেন, “আমার উদ্দেশে পরসপরের যারা ভালবাসে আমার উদ্দেশে পরসপরের সাথে যারা বসে, আমার উদ্দেশ্যে পরসপরে যারা ব্যয় করে এবং আমার উদ্দেশে পরসপরে যারা দেখা-সাক্ষাত করে, তাদের জন্য আমার ভালবাসা সুনির্ধারিত হয়ে গেছে।”

আহমদ ও ইবনে হাব্বান এ হাদীসটি হযরত মুয়ায (রা) থেকে সংগ্রহ করেছেন।