আল্লাহর দীদার

0
168
আল্লাহর দীদার সম্পর্কে
৫৫. রাসূলুল্লাহ (সাঃ) বলেছেন- মহান আল্লাহ্‌ বলেছেন, “আমার বান্দা যখন আমার দিদারকে ভালবাসে, আমিও তার সাক্ষাত ভালবাসি। আর সে যখন আমার দিদারকে অপছন্দ করে, আমিও তার সাক্ষাত ঘৃণা করি।”

মালেক ও বুখারী এ হাদিসটি আবূ হুরায়রা (রা) থেকে সংগ্রহ করেছেন।

৫৬. রাসূলুল্লাহ (সাঃ) বলেছেন- সুমহান আল্লাহ্‌ বলেছেন, “ওহে মূসা! তুমি কখনো আমাকে দেখবে না। জীবিত কেউ মৃত্যুবরণ করা ছাড়া আমাকে দেখবে না। স্থলভাগের কোন অধিবাসী দেখবে না, যতক্ষণ পর্যন্ত না তাকে নীচে নিক্ষেপ করা হয় (অর্থাৎ তার মৃত্যু না হওয়া পর্যন্ত )। জলভাগের কোন অধিবাসীও আমাকে দেখবে না, যে পর্যন্ত না তাকে পৃথক করা হয় (অর্থাৎ মৃত্যু হয়)। নিশ্চয়ই আমাকে বেহেশতীগণ দেখবে, যাদের চোখ দৃৃষ্টি শুণ্য করা হবে না এং যাদের দেহ জীর্ন হবে না।”

হাকীম ও তিরমিযী এ হাদিসটি হযরত ইবনে আব্বাস (রা) থেকে সংগ্রহ করেছেন।

৫৭. রাসূলুল্লাহ (সাঃ) বলেছেন- বেহেশতীগণ যখন বেহেশতে প্রবেশ করবে, তখন সুমহান আল্লাহ বলবেন, “তোমরা কি চাও যে, আমি তোমাদেরকে আরও বেশী কিছূ দেই?” তারা বলবে, “ আপনি কি আমাদের মুখমন্ডলসমূহকে উজ্জল করেন নি?” আপনি কি আমাদেরকে বেহেশতে প্রবেশ করাননি এবং দোযখ থেকে নিষ্কৃতি দেননি?” তখন আল্লাহ্‌ তার হিজাব (আলোর পর্দা) খুলে দেবেন। অতঃপর তাদেরকে তাদের প্রতিপালকের দিকে দৃষ্টিপাত করা অপো অধিকতর প্রিয় কোন বস্তু দেয়া হবে না।”

তিরমিযী ও মুসলিম এ হাদীসটি সুহাইব (রা) থেকে সংগ্রহ করেছেন।